শিরোনাম:

চিন্তার অবসান! আবিষ্কৃত ক’রোনা প্রতি’ষেধক – ১০০ শতাংশ কাজ করছে ঘোষণা পতঞ্জলির রামদেবের..

করো’নার কালো ছায়া বিশ্বের মাথা থেকে দূর করতে আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে বিশ্বের সমস্ত দেশ। এখনও পর্যন্ত আবিষ্কার হয়নি করো’নার প্রতি’ষেধক। সেই প্রতি’ষেধক আবিষ্কার করতে রাত দিন এক করে মরিয়া প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন বিজ্ঞানীরা। সবাইকে ১০০ গোল দিয়ে নাকি ক’রোনার অব্যর্থ ওষুধ আবিষ্কার করে ফেলেছে ভারতবর্ষ! পতঞ্জলি আজ একটি আয়ু’র্বেদিক ওষুধ বাজারে এনেছে যার দাবি সাত দিনের মধ্যেই ক’রোনা ভা’ইরাসকে কুপোকাৎ করে ফেলবে রামদেবের এই দাওয়াই!

“রোগীদের উপর ক্লিনিকাল ট্রায়াল চলাকালীন ১০০ শতাংশ সাফল্য” মিলেছে বলেই দাবি করেছে রামদেবের পতঞ্জলি সংস্থা। যদিও বিশ্বজুড়ে বিজ্ঞানীরা ভাই’রাসের নিরাময়ের জন্য হন্য হয়ে দিবারাত্র কাজ করে চলেছেন। পতঞ্জলির প্রতিষ্ঠাতা, যোগ শিক্ষক রামদেব বলেছেন, “করো’নিল এবং স্ব’সারি” নামের ওষুধগুলি সারাদেশে ২৮০ জন রোগীর উপর গবেষণা এবং পরীক্ষার ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে। অনেক দেশই ভ্যা’কসিন তৈরির চেষ্টা করছে, তবে এখনও কেউই CO’VID-19 এর বিকল্প নিরাময়ের কোনও বৈজ্ঞানিক প্রমাণ দিতে পারেননি।

যোগগুরু বাবা রামদেবের কোম্পানি পতঞ্জলির (Patanjali) এই ওষুধে নাকি মাত্র এক সপ্তাহে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠবেন করো’না রোগী। মঙ্গলবার ওষুধ প্রকাশ্যে এনে এমনই দাবি করল এই সংস্থা।

এদিন পতঞ্জলির তরফে জানানো হল, CO’VID- 19 রোধে বিশ্বের প্রথম আয়ুর্বে’দিক ওষুধ তৈরি করে ফেলেছে তারা। তবে এটি প্রতি’ষেধক হিসেবে কাজ করবে না। করোনা আক্রান্তকে সুস্থ করে তুলবে। ‘করো’নিল ও স্ব’সারি’ নামের এই ওষুধ কো’ভিড রোগীদের উপর পরীক্ষা করেও দেখা হয়েছে। এই ওষুধ প্রয়োগে সুস্থতার পরিমাণ ১০০ শতাংশ বলে জানিয়েছে কোম্পানি।

এদিন হরিদ্বারে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রামদেব বলেন, “গোটা বিশ্ব নো’ভেল করো’না ভাই’রাসের (cor’onavir’us) ভ্যাক’সিন কিংবা ওষুধের অপেক্ষায় রয়েছে। তাই অত্যন্ত গর্বের সঙ্গে জানাচ্ছি, যে পতঞ্জলি রিসার্চ সেন্টার ও NIMS-এর অক্লান্ত প্রয়াসে প্রথম আয়ু’র্বেদিক ওষুধ আমরা নিয়ে এসেছি। যা ইতিমধ্যেই করোনা রোগীর উপর পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। যার প্রমাণও আমাদের কাছে আছে। দীর্ঘ গবেষণার পরই এই ওষুধ তৈরি করা সম্ভব হয়েছে। এই ওষুধে তিন থেকে সাতদিনের মধ্যেই ১০০ শতাংশ সুস্থ হয়ে উঠবেন করোনা আ’ক্রান্ত।”

প্রশ্ন হল, এই জীবনদায়ী ওষুধের মূল্য কত? পতঞ্জলির সিইও আচার্য বালকৃষ্ণ জানান, ৫৪৫ টাকাতেই মিলবে একটি কিট। যা চলবে একমাস। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই পতঞ্জলির স্টোরে পাওয়া যাবে এই কিট। মানুষ যাতে বাড়ি বসেই ওষুধ অর্ডার করতে পারেন, তার জন্য একটি অ্যাপও আনা হচ্ছে। অর্থাৎ করো’না আ’তঙ্ক নিয়ে যে, চিন্তার অবসান হল তা আর বলার অবকাশ রইল না।

Check Also

রাম মন্দির প্রতিষ্ঠার অপেক্ষায় টানা ২৮ বছর অন্নগ্রহণ করেননি এই বৃদ্ধা, সবাই অবাক..

দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে তৈরি করা খাবার ছুঁয়ে দেখেননি তিনি। শুধুমাত্র ফল ও দুধ খেয়েই …