শিরোনাম:

খারাপ সময় দূর করতে সাথে রাখুন তুলসী পাতা সহ এই ৩টি পাতা, ভাগ্য বদলে যাবে..

আমরা সকলেই জানি এবছর আশ্বিন মাস হল মলমাস। প্রতিটি বাঙালি মায়ের আগমনের অপেক্ষারত। এ বছর যদিও মহালয়ার 35 দিন পর মায়ের আগমন তাই প্রতিটি মানুষ অধীর অপেক্ষায় উদগ্রীব। এই মল মাস কি হিন্দু শাস্ত্রের অশুভ বলা হলেও এই সময়ে এমন কিছু ক্রিয়া করলে জীবনে সুফল অবশ্যই আসবে। মলমাস টিকে অশুভ বলা হলেও আসলে এটি হলো চন্দ্র ও সূর্যের সময় গণনার জন্যেই এই মলমাসটি বছরে একবার হয়ে থাকে।

তবে মল মাসটি হলো শ্রীকৃষ্ণের একটি প্রিয় মাস। তাই এই মাসটিকে পুরুষোত্তম মাস বলা হয়ে থাকে। এই মাসে আপনি একটি কাজ করে থাকেন তাহলে আপনার জীবনে সৌভাগ্য অবশ্যই ফিরে আসবে। যদি আপনি এই তিনটি পাতা আপনার সঙ্গে রেখে থাকেন তাহলে বিপদ আপনাকে স্পর্শ করতে পারবে না। এই কাজটি আপনি মঙ্গলবার বা বৃহস্পতিবার শনিবার করে থাকেন। প্রথমেই আপনি শুদ্ধ বস্ত্রে পাতাগুলিকে ভালো করে ধুয়ে নেবেন।

তারপরে গঙ্গা জলে পাতাগুলোকে ধুয়ে আপনার আরাধ্য দেবতা তাঁর চরণে স্পর্শ করিয়ে আপনি আপনার অর্থ রাখার জায়গায় রেখে দিতে পারেন। যখন এই পাতাগুলো শুকিয়ে যাবে তখন আপনি কি করবেন? যখন এই পাতাগুলো শুকিয়ে যাবে তখন আপনার বাড়ির কাছাকাছি কোন পুকুর বা নদীতে পাতাগুলি ভাসিয়ে দেবেন। তারপরে আবার সেই একই নিয়মে আপনি পাতাগুলি কে সংগ্রহ করে যথাস্থানে রেখে দেবেন। আসুন জেনে নেই সেই তিনটি পাতা সম্পর্কে।

প্রথম পাতা টি হল অসত্থ পাতা। আপনারা সকলেই জানেন এই অশত্থ পাতা কে পুরান শাস্ত্রে স্থান দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও অশত্থ গাছ আমরা পূজা-অর্চনা করে এরপর দ্বিতীয় যে পাতাটির কথা বলব সেটি হল বট পাতা। আমাদের পৌরাণিক শাস্ত্রে এই বট গাছের ভূমিকা কিন্তু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই এই বট পাতা ও রাখবেন।

এরপর তৃতীয় যে পাতাটির কথা বলব সেটি হলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং সকলেরই চেনা একটি পাতা তুলসী পাতা।তুলসী পাতার কি গুনাগুন এবং প্রতিটি মানুষের জীবনে তুলসী পাতা টি কতটি গুরুত্বপূর্ণ আমরা সকলেই এটা জানে। এবং পৌরাণিক শাস্ত্রে তুলসী পাতা কতটা গুরুত্বপূর্ণ আমরা সকলেই জানি। তাই এই পাতাটি ও রাখতে অবশ্যই ভুলবেন না। এই তিনটি পাতা যে পদ্ধতিতে বললাম সেই পদ্ধতিতেই যথাস্থানে রেখে দেবেন। দেখবেন আপনার জীবনের সকল আর্থিক সমস্যা গুলি মিটে যাবে।

Check Also

এই আশ্বিনের মল মাসে বাড়ির মহিলারা ভুলেও এই ৭টি জিনিস কাউকে দেবেন না | সংসারে ক্ষতি হয়ে যাবে..

ইতিমধ্যেই আমরা সকলে এই বিষয়ে অবগত যে এই বছর অর্থাৎ 2020 সালে মহালয়ার ৩৫ দিন …