শিরোনাম:

এই মল মাসে রোজ সকালে পাঠ করুন এই ১টি দুর্গামন্ত্র | সংসার সুখ শান্তিতে ভরে উঠবে..

দুর্গাপূজা শুরু হতে আর মাত্র কয়েকটা দিন বাকি। এবছর মহালয়ার ৩৫ দিন পর দুর্গাপুজো পড়েছে। মহালয়া থেকে পুরো একমাস চলছে মাস মল মাস। মল শব্দের অর্থ অশুভ। তাই শাস্ত্রে, এই মল মাসে সমস্ত ধরনের শুভ কাজ করতে বারণ করা হয়েছে। তবে এই মল মাসে সমস্ত ধরনের অশুভ প্রভাব থেকে বাঁচতে অবশ্যই প্রতিদিন সকালে এই দুর্গা মন্ত্রটি জপ করুন।

এই মন্ত্রটি পাঠের ফলে আপনার মনে এক অভূতপূর্ণ মনোবলের তৈরি হবে, এক পজিটিভ বলয় সৃষ্টি হবে যা আপনাকে সকল প্রকার বাধা-বিপ’ত্তিকে কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবে। এই মল মাসে যদি আপনি প্রত্যহ সকালে উঠে এই মন্ত্রটি পাঠ করেন তবে আপনার পরিবারে আসবে সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি। সংসার হয়ে উঠবে মঙ্গলময়। তো সেই মন্ত্রটি কি ও পাঠের নিয়মগুলি সম্পর্কে আসুন বিস্তারিত জেনে নি..

যেকোনো মন্ত্র পাঠের পূর্বে আমাদের আগে জানতে হবে যে, কেন আমরা এই মন্ত্রটি পাঠ করছি। মন্ত্র শব্দটি – সংস্কৃত শব্দ মন এবং ত্রা এর সমন্বয়ে গঠিত। মন হলো আমাদের শান্তির উৎস স্থল এবং ত্রা এর অর্থ হলো পদ্ধতি। অর্থাৎ পুরো বিষয়টি হলো, যে পদ্ধতিতে আমরা মনকে শান্ত রাখতে পারি বা শান্তিতে রাখতে পারি তাই হল মন্ত্র।

মন ও জীবনকে যদি আপনি আনন্দে ও শান্তিতে রাখতে পারেন তবে যেকোনো কাজেই আপনি খুব সহজে সাফল্য অর্জন করবেন। এই মল মাসে এই দুর্গা মন্ত্রটি পাঠ করলে আপনি ভালো ফল পাবেন। কারণ এই দুর্গা মন্ত্রটি দেবীপক্ষে বেশি ফলপ্রসূ। তাই দুর্গাপূজা পর্যন্ত প্রতিদিন সকালে অন্তত একবার এই মন্ত্রটি অবশ্যই পাঠ করুন।

এই মন্ত্রটি পাঠের জন্য আপনি দুটো পদ্ধতি অবলম্বন করতে পারেন। প্রথম পদ্ধতি হলো, আপনি এই মন্ত্রটি ঘুম থেকে উঠে নিজের বিছানাতেই জপ করতে পারেন। ঘুম থেকে উঠে চোখ বন্ধ করে মনে মনে প্রথমে ইস্ট দেবতার উদ্দেশ্যে প্রণাম জানান। ইস্ট দেবতার প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করুন আপনার সুস্থ জীবনে জন্য। এরপর চোখ বন্ধ রেখে মনে-মনে অথবা সশব্দে এই দুর্গা মন্ত্রটি জপ করতে পারেন।

এই দুর্গা মন্ত্রটি হল “ওঁ সর্ব মঙ্গল মঙ্গল্যে শিবে সর্ব্বার্থসাধিকে শরণ্যে ত্র্যম্বকে গৌরী নারায়নী নমস্তুতে।” এই মন্ত্রটি হল দুর্গা প্রণাম মন্ত্র। এই মন্ত্রটি অন্তত ১০৮ বার জপ করবেন। একান্ত মনে, নিষ্ঠা সহকারে এই মন্ত্রটি জপ করবেন। ১০৮ বার সম্ভব না হলেও অন্তত ২৮ বার অবশ্যই জপ করুন। আপনার বাড়িতে যদি দুর্গা মায়ের মূর্তি থাকে, তাহলে স্নান সেরে শুদ্ধ বস্ত্রে মায়ের সামনে আবারও এই মন্ত্রটি পাঠ করুন।

এছাড়া যদি মায়ের মূর্তি না থাকে তবে খোলা আকাশের দিকে তাকিয়ে হাতজোড় করে আবারো এই মন্ত্রটি পাঠ করুন। দ্বিতীয় পদ্ধতিটি হলো, যদি কোন কারণে সকালবেলায় মন্ত্রটি পাঠ করা আপনার পক্ষে সম্ভব না হয়ে থাকে, তবে সন্ধ্যেবেলা যখন আপনি সন্ধ্যা প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করবেন, ঠিক সেই সময় আপনি এই মন্ত্রটি পাঠ করতে পারেন। আপনি চেষ্টা করবেন ১০৮ বার এই মন্ত্রটি পাঠ করার।

যদি তা সম্ভব না হয় তবে অন্তত একটি বার হলেও এই মন্ত্রটি পাঠ করবেন। এই ধরিত্রীতে দু’ষ্টের দ’মন ও শিষ্টের পালনের জন্যই মা দুর্গার আবির্ভাব ঘটে। আর এই দূর্গা মন্ত্র পাঠের মাধ্যমে আমাদের মধ্যে সেই শক্তির সঞ্চার হয় যার মাধ্যমে আমরা সকল বাধা বিপ’ত্তিকে কাটিয়ে উঠতে পারি।

Check Also

শনি বা মঙ্গলবার বালিশের নিচে চুপচাপ রেখে দিন এই জিনিসটি, ভাগ্য থাকবে তুঙ্গে, সুখ শান্তি আসবে..

মানুষের জীবনে দুঃখ কষ্ট সবারই আছে। সবাইকে প্রায় প্রতি নিয়ত কোন না কোন সমস্যার সম্মুখীন …