শিরোনাম:

তুলসী গাছের পাশে লাগান এই গাছটি, চমৎকারী ফল পাবেন, প্রচুর অর্থ আসবে..

প্রতিটি হিন্দুর বাড়িতে মাতা তুলসীর বাস। তুলসী হলেন ধন-সম্পদ প্রদায়িনী, দারিদ্র হরণকারী। তাই তুলসী গাছ সমস্ত বাড়িতে লাগানো উচিত। তুলসী গাছ উত্তর-পূর্ব দিকে লাগানো সবথেকে উত্তম কার্য হয়ে থাকে। তুলসী গাছ এমন একটি গাছ যা স্পর্শ করলে মন পবিত্র হয়ে যায়। যাকে প্রণাম করলে রোগব্যাধির বিনাস ঘটে, জল অর্পণ করলে স্বয়ং য’মরাজ ভীত হয়ে দূরে সরে যায়।

পদ্মপূরাণে ভগবান, শ্রীনারদ মুনিকে তুলসী সম্বন্ধে বলতে গিয়ে বলেছেন, তুলসী বৃক্ষের পাতা, ফল-ফুল, মূল, কাণ্ড, মাটি সবই অতি পবিত্র। তবে তুলসী তলার মাটি নিয়ে যদি এই কাজটি করেন তাহলে সবদিক থেকেই চমৎকারী ফল পাবেন। আরো অনেক ফল পাবেন এই কাজটি করলে। তো কি সেই কাজ আসুন জেনে নিই..

কলাগাছ হলো খুবই শুভ ও সম্পূর্ণতার প্রতীক। হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী এটা মানা হয় ভগবান বিষ্ণুও বাস করেন কলাগাছে, তাই জ্যোতিষ শাস্ত্র ও বাস্তু শাস্ত্র অনুসারে বাড়িতে যদি এই গাছ থাকে তাহলে বাড়ি পজিটিভ শক্তিতে ভরপুর হয়ে থাকবে। ধন বিদ্যা বিবাহ সংক্রান্ত সকল সমস্যা দূর হয়ে যাবে এই গাছ বাড়িতে থাকলে।

আপনার বাড়ির পেছনে লাগানো এই গাছ ধন সম্পদ সংক্রান্ত সকল সমস্যা দূর হয়ে যাবে। যদি আপনার বাড়ির পেছনে জায়গা না থেকে থাকে তাহলে বাড়ির মুখ্য দরজার ডানদিকে এই গাছ ব্যালকনিতে ও লাগাতে পারেন। তবে এই গাছটি ঈশান কোণে লাগানো খুবই ভালো। হিন্দু শাস্ত্র মতে এটা মানা হয় যে যদি তুলসী গাছের কাছে এই গাছ লাগানো হয় তাহলে তার দ্রুত ফল প্রদান করে থাকে।

কলাগাছে যেহেতু ভগবান বিষ্ণুর বাস এবং তার কাছে তুলসী গাছ থাকা মানে ভগবান বিষ্ণুর প্রচুর কৃপা লাভ করতে পারবেন। তাই এই দুই গাছ যদি একসঙ্গে থেকে থাকে তাহলে আপনার বাড়ির উন্নতি অবশ্যম্ভাবী। যদি আপনার বাড়ির মুখ্য দরজার ডানদিকে কলা গাছ লাগান তাহলে বাম দিকে অবশ্যই তুলসী গাছ লাগান।

গরুর দুধ ও তাতে কিছু হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে কলাগাছে অর্পণ করুন। তাতে বৃহস্পতিদেব খুবই খুশি হবেন। ভগবান বিষ্ণুর কৃপা দৃষ্টি সর্বদাই আপনাদের উপর থাকবে। তবে এই কাজটি বৃহস্পতিবার সকাল-সকাল স্নান করে শুদ্ধ হয়ে, ভগবান বিষ্ণুর পুজো করে তারপরেই করুন।

Check Also

এই মল মাসে রোজ সকালে পাঠ করুন এই ১টি দুর্গামন্ত্র | সংসার সুখ শান্তিতে ভরে উঠবে..

দুর্গাপূজা শুরু হতে আর মাত্র কয়েকটা দিন বাকি। এবছর মহালয়ার ৩৫ দিন পর দুর্গাপুজো পড়েছে। …